হোয়াইট মোগলস্

হোয়াইট মোগলস্ আবেগপূর্ণ প্রেমের একটি বিয়োগান্তক কাহিনী যা সাংস্কৃতিক, ধর্মীয় এবং রাজনৈতিক সীমারেখাকে অতিক্রম করেছে। জেমস অ্যাকিলিস কার্কপ্যাট্রিক ছিলেন হায়দরাবাদের নিজামের দরবারে নিয়োজিত ব্রিটিশ রেসিডেন্ট। এক অসাধারণ রূপসী কিশোরী কন্যা খায়র উন নিসার প্রেমে পড়ে তাকে বিয়ে করেন। এ জন্য তাকে বহু বাধা-বিপত্তির মোকাবেলা করতে হয়েছিল। খায়র উন নিসা ছিলেন নিজামের দরবারে নিয়েজিত বক্‌শি (paymaster) বকর আলি খানের নাতিনি এবং নবী মুহাম্মদ (সাঃ) এর বংশধর। তিনি কেবল পর্দা প্রথায় বন্দী ছিলেন তা-ই নয়, অন্য একজন ওমরাহের বগদত্তাও ছিলেন। বিষয়টি হায়দরাবাদে ব্রিটিশদের জন্য অত্যন্ত স্পর্শকাতর হয়ে পড়েছিল।
এটি প্রেম, প্রলোভন, বিশ্বাসঘাতকতা, প্রেমিক-প্রেমিকার গোপন মিলন, প্রাসাদ চক্রান্ত, হারেমের রাজনীতি এবং পারিবারিক টানাপোড়নের এক অসাধারণ কাহিনী। শ্বেত মোগলরা ভারতীয় পোষাক ও রীতিনীতিতে অভ্যস্ত হয়ে পড়ায় উপনিবেশিক শাসকরা বিব্রত হয়ে পড়েছিল। হায়দরাবাদে নিয়োজিত রেসিডেন্ট কার্কপ্যাট্রিকের আচরণে ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ খুবই উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছিল এবং তার বিরুদ্ধে কয়েকবার তদন্তও করেছিল।
এই অঞ্চলে ব্রিটিশদের জন্য রাজনৈতিক বিষয়ে অত্যন্ত উপযোগী ও উদ্দেশ্য হাসিলের উৎপাদক ছিলেন কার্কপ্যাট্রিক। তিনি হায়দরাবাদের নিজামের সঙ্গে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ চুক্তি সম্পাদন করেন। তিনি স্থানীয় ভাষা অনর্গল বলতে পারতেন। সুকৌশলে পরিস্থিতি মোকাবেলা করে অবশেষে তিনি ফরাসিদের এ অঞ্চল থেকে হটিয়ে দিতে সক্ষম হন। ফলে কেলেঙ্কারী সত্ত্বেও তিনি তার অবস্থান ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছিলেন। তিনি অনেক বেশিই এ দেশীয় বনে গিয়েছিলেন। এই দম্পতির পুত্র ও কন্যা তাদের দাদার সঙ্গে বসবাসের জন্য ইংল্যান্ড গমন করে। পরবর্তীতে পিতামাতার সংঙ্গে তাদের আর কখনো সাক্ষাৎ ঘটে নি।
উইলিয়াম ড্যালরিম্পল দীর্ঘ পাচঁ বছর অক্লান্ত গবেষণা করে এই হোয়াইট মোগলস্‌-এ অনেক অজানা ইতিহাস প্রকাশ করেছেন। তার গবেষণার বিস্তার ছিল ব্যাপক, খুটিঁনাটি বিষয়ে অতি যত্নশীল, অতি সতর্ক ও যথাযথ। এমনকি তিনি চরিত্রগুলির পিছনে ধাওয়া করতে গিয়ে বিভিন্ন মহাদেশ পাড়ি দিয়েছেন, জটিল ও বিস্ময়কর সংখ্যক নথি সংগ্রহ করেছেন, যা বহু যুগ আগে হারিয়ে যাওয়া ঘটনাবলীকে আলোকিত করার জ্বালানী সরবরাহ করেছে।

গ্রন্থ           : হোয়াইট মোগলস
মূল           : উইলিয়াম ড্যালরিম্পল
অনুবাদ     : তাহমিন আহমেদ
প্রকাশক      : শাহিনা বেগম, নুসরাত প্রকাশনী, ৩৮/২খ বাংলাবাজার, ঢাকা
প্রচ্ছদ         : নিয়াজ চৌধুরী তুলি
প্রথম প্রকাশ: ফেব্রুয়ারি ২০১৫
মূল্য           : ৪২০ টাকা

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s